প্রফেশনালদের মত তৈরী করুন মোবাইল ফোনের থিম

আপনি কি একটু ক্রিয়েটিভ টাইপের মানুষ? ক্রিয়েটিভিটির আইডিয়া কি মাথায় গিজ গিজ করছে? সব জায়গাতেই নিজের ক্রিয়েটিভিটির ছাপ রাখতে চান? মোবাইল ফোনের জন্যে ক্রিয়েটিভ থিম বানানোর কথা ভাবছেন? কিন্তু কোথা থেকে শুরু করবেন বুঝতে পারছেন না, তাই তো।

নো প্রবলেম, আসুন আমি আপনাদের কাজটা আরেকটু সোজা করে দেই। আমি যে সফটওয়্যারটি দিয়ে মাঝে মাঝেই series 60 মোবাইলের থিম বানিয়ে থাকি সেটির সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেই।

থিম বানানোর জন্যে হাজারো সফটওয়্যার থাকলেও সবগুলোর মান কিন্তু প্রফেশনাল লেভেলের না। আমি যে সফটওয়্যারটি ব্যবহার করি সেটি হল “Carbide.ui S60 Theme Edition” সাইজে একটু বড় হলেও এতে কাজ করে মজা পাওয়া যায় এবং আপনি ভালো মানের কাজ করতে পারবেন।

প্রথমেই এই ১৩৬ এমবি এর ফাইলটাকে ডাউনলোড করে আপনি আপনার কম্পিউটারে ইনস্টল করে নিন। এরপর আসুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে আপনি সিম্পলি কোন থিম ক্রিয়েট করবেন -

১. প্রথমে সফটওয়্যারটি লঞ্চ করুন এবং

1.png

ক্রিয়েট থিম সিলক্ট করুন এর পর একটি ডায়লগ বক্স দেখাবে যেখানে আপনাকে থিমের নাম দিতে বলা হবে

2.png

আপনি পছন্দমত থিমের একটি নাম দিন এবং ফিনিশ এ ক্লিক করুন। এবং ফিনিশ ক্লিক করার সাথে সাথেই আপনার সামনে থিম এডিটর ওপেন হবে

3.png

এইবার ব্যাকগ্রাউন্ডের ছবি এডিটিং এর জন্যে আপনাকে প্রেফারেন্স থেকে বিটিএমপি এডিটর ওপেন করতে হবে

41.png

এখানে লক্ষনীয় যে বিটিএমপি এডিটর আপনার পছন্দের যে কোন সফটওয়্যার হতে পারে। যদি আপনার ফটোশপ থেকে থাকে তাহলে আপনি এই কাজ ফটোশপেও করতে পারবেন।

আরো সহজে এই বিটিএমপি এডিটরকে ওপেন করতে হলে click Background > Idle Background > Convert and Edit in Bitmap Editor:5.png

এটি আপনার কাছে বিটিএমপি ফাইলের সাইজ চাইবে

6.png

আপনি আপনার প্রয়োজন মত ছবির ডায়মেনশন চেজ্ঞ করে নিন। নকিয়ার সিরিজ 60 ফোনগুলোর জন্যে default (240X320)করে দেয়া থাকে। ok প্রেস করে কিন্টিনিউ করুন তাছাড়া আপনি কোন কোন অরডিনারি ছবি এডিটিং এর কাজে এমএসপেইন্ট ও ওপেন করতে পারেন।

7.png

ফটো এডিটিং এর জন্যে এইপর্যন্তই যথেষ্ট এবং এর পর আপনি আপনার এই কাজ সেভ কের রাখুন। এই সফটওয়্যারের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল থিম হিসেবে ব্যবহার করার জন্যে আপনি যে ছবিটি বেছে নিয়েছেনতার যে কোন অংশই এডিট করতে পারবেন আপনি। উদাহরন স্বরুপ যদি আপনি কনটাক্ট এর বাটন এডিট করতে চান তাহলে আপনি চাইলে এডিটর প্যানেলে এই কন্টাক্ট আইকনকে এক্সপ্লোর করতে পারবেন ফলে আপনার কাজ করতে আরো সুবিধা হবে।

8.png

প্রত্যকটি ইন্টারফেস কে আলাদা আলাদাভাবে এডিটিং এর জন্যে (যেমন এ্যাপ্লিকেশন মেনু) আপনাকে গ্যালারী ট্যাব অন করতে হবে এবং আপনার পছন্দমত আইকন বেছে নিতে হবে।

9.png

স্ক্রীনশটে টাইপ ১ এর এ্যাপ্লিকেশন মেনু এডিট করার জন্যে এ্যাপ্লিকেশানস গ্রিড ১ এ ক্লিক করা হয়েছে (নকিয়ার 60সিরিজ এর জন্যে সাধারনত দুটি এ্যাপ্লিকেশান গ্রিড থেকে থাকে)

কালার এবং ব্যাকগ্রাউন্ডের ছবি এডিটিং এর পরে আপনি আপনার মোবাইলে এক্সপোর্ট করে নিন

10.png

এটি আপনার কাছে জানতে চাইবে যে আপনি কোথায় এই ফাইলটি সেভ করতে চান

11.png

ফাইলটি আপনার সেল ফোনে সেভ করুন এবং একটি অরডিনারি এ্যাপ্লিকেশানের মতই ইন্সটল করে নিন।

একদম সিম্পল। ট্রাই করে দেখতে পারেন।

তবে দুটি কথা বলে রাখা প্রয়োজন। সফটওয়্যারটি প্রফেশনাল লেভেলের হওয়ার কারনে এটি অনেকটা মেমরি কনজ্যুম করতে পারে। ফলে এই সফটওয়্যার ব্যবহার কারে আপনার পিসি স্লোডাউন হতে পারে।

এইখান থেকে এই চমৎকার টুলটি ডাউনলোড করে নিন

Previous
Next Post »

পোস্ট সম্পর্কিত সমস্যার জন্য মন্তব্য দিন।ডাউনলোড লিঙ্ক এ সমস্যা জন্য ইনবক্স করুন Aimzworld007
ConversionConversion EmoticonEmoticon

Thanks for your comment