[পর্ব-৩] :: অনলাইনে আয়ের কিছু সঠিক দিক নির্দেশনা

সমাজের অনেক লোক আছে যারা বিশ্বাস করতে চায় না যে ইন্টারনেট থেকেও ইনকাম সোর্স আছে .আবার অনেকে আছে এ লাইনে পা দিয়ে প্রতারনা শিকার হয়ে ঘরে ফিরে যায় । অনলাইনে আয় মূলত নির্ভর করে প্রচুর ধৈর্য্যর উপর । আমি মনে করি যাদের ধৈর্য্য নেই তারা যেন ইন্টারনেটে আয়ের পথে পা না বাড়ায় । কারন তারা রাতারাতি লাখ লাখ টাকা উর্পাজন করতে এসে অবশেষে প্রতারনা নিয়ে ঘরে ফিরতে হয় ।আর এ কলংক পুরো ফ্রিল্যান্সার জগতে এসে লাগে ।

কিভাবে আয় করবেন ?

আয় করতে হলে অবশ্যই কাজ জানতে হবে বা শিখতে হবে ।

কি কাজ করবেন ?

আমি মূলত ওয়েবে এড পাবলিশ করে উপার্জন করি । ওয়েবে এড পাবলিশ করে অথবা ফ্রিল্যান্সিং এ কাজ করতে পারেন । দুইটা ধরনের কাজ ফ্রীল্যান্সিং কাজ করতে চাইলে ওয়েব ডিজাইন .গ্রাফিক্স . ও seo বিষয়ে কাজ জানলেই চলবে বাকী কাজগুলো ধীরে ধীরে শিখতে পারবেন । আর এজন্য http://www.freelancer.com বা http://www.odesk.com নিশ্চিতে বিড করে কাজ নিতে পারেন .আর যাই হোক এরা কখনো আপনার উপার্জনের টাকা মেরে খাবেনা ।

এডপাবলিশ করার ক্ষেত্রে মূলত নিজের একটি ওয়েব সাইট থাকতে হবে .আর ওয়েবসাইট টি সুন্দর সুন্দর কন্টেন দিয়ে সাজাতে হবে যাতে ভিজিটরকে আকৃষ্ট করানো যায় নিয়মিত আপনার সাইট ভিজিট করতে .আর এ ক্ষেত্রে Google adsense সবার চাইতে এগিয়ে তারপর যার স্থান সে হলো bidvertiser আরো আছে Adbrite .chitika এরা কখনো আপনার আয়ের টাকা মেরে খাবেনা এ নিশ্চয়তা আছে ।

আর ওয়েবে কিভাবে এডপাবলিশ করবেন তা নিয়ে ইতিমধ্য ধারাবাহিক টিউন লিখছি । আরো কয়েকটি উপায়ে অনলাইনে আয় করতে পারেন যেমন sedo ডোমেইন পার্ক করে উপার্জন করতে পারেন আর এজন্য আপনার নিজস্ব ডোমেইন থাকতে হবে । আর যারা একে বারে নতুন তাদের জন্য আছে microworkers

আমি এতক্ষন যাদের কথা বললাম তারা কোনদিন আপনার উর্পাজনের টাকা মেরে খাওয়া সম্ভবনা নেই ।

তারা কেন আপনাকে টাকা দিবে ?

তার উত্তর আপনি একটু ভেবে দেখলে পেয়ে যাবেন ।

যেমন ফ্রীল্যান্সার সাইটগুলো কথা বলতে চাই .যেমন একটা ওয়েবসাইট যদি ইউরোপ বা আমেরিকার ডেভলপার দিয়ে করাতে চায় সেখানে খরচ পড়ে ৩ থেকে ৫ হাজার ডলার .আর একই কাজ যদি এশিয়া থেকে মানে বাংলাদেশ.ভারত .পাকিস্তান বা ইন্দোনেশিয়া থেকে করানো যায় তবে সর্ব্বোচ ৮০০ ডলার দিলেই তাদের কাজ সম্পন্ন.আর আমরা খুশিতে আত্মহারা হয়ে যাই । এতো গেলো ফ্রীল্যান্সাদের গল্প ।

এবার আপনি প্রশ্ন করতে এডপাবলিশ করা থেকে কেনো টাকা দিবে ?

দাদার দাদার আমলে গেছে কলের গান .দাদার আমলে রেডিও .বাবার আমলে গেছে টেলিভিশন আর আমাদের আমলে পৃথিবীটা ছোট হয়ে ইন্টারনেটে সীমাবদ্ধ হয়েছে তাই দাদার আমলে রেডিওতে যদি বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে তাহলে আপনার আমলে বিজ্ঞাপন দাতারা ওয়েবসাইটে বিঞ্জপন দিবেনা তা কি করে হয় বলুন ?ওয়েবে বিজ্ঞাপনে একদিকে যেমন তাদের পন্য বিশ্বজুড়ে প্রচার পাচ্ছে তেমনি পেপাল বা ক্রেডিট কার্ডে থাকছে সাথে সাথেই পন্য বিক্রয় করার সুযোগ ।

আর এজন্য সহজ এ মাধ্যম টিকে বেছে নিয়েছে বিজ্ঞাপন দাতারা । তবে বাংলাদেশে পেপাল সুবিধা নেই তাই তারা কোন পন্য বিক্রয় করার সম্ভবনা নেই তাই বাংলাদেশীরা এড ক্লীক করলে খুব একটা দাম পাওয়া যায়না শুধুমাত্র প্রচার মূল্য দেয় ।

কিভাবে বাঁচবেন অনলাইনে আয়ের নামে প্রতারনার হাত থেকে ?

আমি এতক্ষণ যাদের নিয়ে আলোচনা তাদের সফলতা দেখে একশ্রেনীর অসাধুরা ঠিক তাদের মত করে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সাইট বানায় .আর রাতারাতি কোটিপতি বানিয়ে দেবার লোভ দেখিয়ে অবৈধ ভাবে কাজ করিয়ে নেয় । তাই যেকোন কাজ করার আগে অনেক সচেতন ব্লগার আছে তাদের পরামর্শ নিয়ে কাজ শুরু করবেন যেমনঃএই সাইটের এডমিন সহ

শাকিল আরেফিন ভাই .রনি পারভেজ. আরিফুল ইসলাম শাওন .সালেহ আহমেদ .মেহেদী আকরাম .মাহবুব টিউটো .জাকির ভাই সহ আরো কিছু ব্লগার আছে তাদের খুজে বের করে ফেসবুকে বন্ধুবানিয়ে নিন । আমার বিশ্বাস তারা কখনো আপনাকে স্ক্যাম বা পিটিসি সাইটে কাজ করার অনুমোদন দেবেন না।

বর্তমানে কিছু MLM সিষ্টেমে সাইট এসেছে সাথে নিয়ে এসেছে একঝাঁক দালাল যারা আপনাকে ইবলিশের মত স্ক্যাম সাইটে কাজ করার জন্য তোষামোদ করবে ।

কিছু দিন আগের একটা কথা বলি একটা mlm সাইটে ফেক আইডি বানানোর খুব তোড়জোড় চলছিল আমার কাজ বিভিন্ন ভাবে বলতে লাগলো ফোনে যখন আমাকে বলছিলো আমি উত্তর দিয়েছিলাম আপনি আমাকে ভূয়া কাজের অফার দিচ্ছেন আপনার পেমেন্ট সিষ্টেম সঠিক তার নিশ্চয়তা কি তিনি জবাব দেননি ।

একজন আমার পেজে লিংক দিল তার সাইটে একই অবস্থা যখন তাকে কয়েকটা প্রশ্ন করলাম ক্ষমা চেয়ে পোষ্টটি ডিলেট করেছিল ।

কেউ কেউ বিনিয়োগের অফার দিয়ে হাতিরঝিল বা মতিঝিলে অফিস দেখায় আমি যখন প্রশ্ন করি তোমাদের অফিস আগামী ৬মাস পরে এখানে থাকবে তার কোন গ্যারান্টি পারবে ? কোন জবাব থাকেনা ।

আমার পরামর্শ বিনিয়োগ করলে সরকার অনুমোদিত শেয়ারবাজারে করুন বিক্ষোভের পর টিভি বা পত্রিকায় ছবি আসলেও আসতে পারে । কিন্তু এরকম ভিত্তিহীন অফিসে বিনিয়োগ না করাই নিরাপদ আর আপনি যে স্ক্যাম সাইটে বিনিয়োগ করছেন তা ডাউন হতেই বা কতক্ষণ লাগবে ?

অনেকে অনলাইন আয়ের উপর কর্মশালা করে . এখানেও ভিন্নমত রয়েছে। ইদানিং নাকি কিছু ব্যক্তি শুধু টাকা খাওয়ার জন্য কর্মশালা করে শুনেছি.তারা নিজেরাই অনলাইনে আয়ে পারদর্শী নয়। তবে সবাই একরকম নয় । সর্বোপরি অনলাইনে আয় করতে হলে ভেবে চিন্তে পা বাড়ান ।

সর্বশেষ অনলাইনে আয় করে নিজের জীবনকে সুন্দর করে গড়ে তুলুন । অনলাইনে কাজ করতে আমাদের সবচেয়ে বেশী দরকার পেপাল .কিন্তু সব সরকার নিজেদের প্রয়োজনে অনেক আইনের পরিবর্তন আনলেও হাজার তরুনের কর্মসংস্থানের জন্য মানি লন্ডারিং আইনে কোন পরিবর্তন আনছেনা ।

 

পূর্ব প্রকাশঃ  http://www.facebook.com/groups/Onlineearninghelpline

Previous
Next Post »

পোস্ট সম্পর্কিত সমস্যার জন্য মন্তব্য দিন।ডাউনলোড লিঙ্ক এ সমস্যা জন্য ইনবক্স করুন Aimzworld007
ConversionConversion EmoticonEmoticon

Thanks for your comment