২০১৫ সালে সেরা দশে থাকা সফটওয়্যারগুলোর নাম এবং মূল্য তালিকা

২০১৫ সালে তালিকায় শীর্ষে থাকা ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারগুলোর নাম এবং মূল্য তালিকা নিচে দেওয়া হলো। একটি বিষয় মনে রাখবেন দাম বেশি হলেই কিন্তু সেটা কাজে ভালো হয় না। ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতার আলোকে এবং সফটওয়্যারগুলোর ফিচারের ভিত্তিতে নিচের লিস্টটি করা হয়েছে।

এক নজরে দেখে নিন সেরাদের তালিকায় কোন কোন সফটওয়্যার স্থান দখল করে আছে

  • 01. CyberLink PowerDirector | $49.99
  • 02. Corel VideoStudio | $69.99
  • 03. Adobe Premiere Elements | $84.68
  • 04. MAGIX Movie Edit Pro | $99.99
  • 05. Roxio Creator | $99.99
  • 06. Pinnacle Studio | $59.95
  • 07. AVS Video Editor | $59.00
  • 08. Nero Video | $59.99
  • 09. MoviePlus | $79.99
  • 10. VideoPad | $69.95

উপরের লিস্টটি থেকে আপনারা হয়তো নিশ্চিত হয়েছেন যে তালিকায় প্রথমে থাকা Cyberlink Power Director সফটওয়্যারটিই হলো সবার সেরা সফটওয়্যার। তো ডাউনলোড শুরু করার আগে চলুন সফটওয়্যারটির ফিচার সম্পর্কে একটু জেনে নিই। তারপর না হয় ডাউনলোড করা যাবে।

Cyberlink Power Director Ultimate | Price $99.09

Cyberlink Power Director সফটওয়্যারটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে আপনার জন্য সব চেয়ে ভালো উপায় হলো তাদের অফিশিয়াল সাইটটি একবার ঘুরে আসা। তো Cyberlink Power Director এর অফিশিয়াল সাইট ভিজিট করতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

পাওয়ার ডিরেক্টর আল্টিমেট এর ফিচার সমূহ জানতে ছবিটিতে ক্লিক করুন | অফিশিয়াল সাইট

বরাবরের মতো আজ যারা আশায় আশায় ছিলেন যে অফিশিয়াল সাইটে না গেলেও আমি সফটওয়্যারটি সম্পর্কে একটা সংক্ষিপ্ত রিভিউ দিবো তাদের কে হতাশ করে দিয়ে বলছি যে আজ কোন রিভিউ হবে না। কারন Cyberlink Power Director এর এতোই ফিচার যে তার দু’একটা বললে সফটওয়্যারটির অপমান করা হবে। তার চেয়ে বরং নিজেরাই একটু দেখে আসুন। আমি কেবল আপনাদের ভেতরের ইন্টারফেইসটা দেখাতে পারি। ভালো লাগলে অবশ্যই ডাউনলোড করে ব্যবহার করবেন। নিচের চিত্রটি এক নজরে দেখে নিন। দেখতে ভালো লাগলেই তো কাজে কেমন সেটা বিবেচনা করবেন।

এক নজরে দেখে নিন অন্দরমহল | ভালো লাগলে তো ডাউনলোড করবেন

ফুল ভার্সন ডাউনলোড

সফটওয়্যারটির ফিচারগুলো যদি ভালো লেগে থাকে এবং আপনাদের প্রয়োজনের সাথে যদি মিলে যায় তাহলে নিচের ডাউনলোড লিংক থেকে সফটওয়্যারটির ট্রায়াল ভার্সন ডাউনলোড করে নিন। সাইজ নিয়ে আপনাকে একটু চিন্তা করতে হবে। কারন ৯০৩ মেগাবাইট ডাটা খরচ করতে সফটওয়্যারটি নামাতে, ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারতো আর মুখের কথা না।

ডাউনলোড ইনস্টলার | সাইজ ৯০৩ মেগাবাইট

সাইবার লিংকের যদিও এটা সর্বশেষ প্রডাক্ট কিন্তু এর পরেও এটার সাথে কিছু আপডেট যুক্ত হয়েছে। আপডেট ফাইলগুলো ডাউনলোড করতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন। আপডেট ফাইলের সাইজ ৩১৪ মেগাবাইট। আপডেট না করতে চাইলেও কোন সমস্যা নেই।

সফটওয়্যারটিকে ফুল-ভার্সন করার জন্য আপনার প্রয়োজন হবে মেডিসিন ফাইল। নিচের ডাউনলোড লিংক থেকে ২৮৭ কিলোবাইট সাইজের মেডিসিন ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন। তারপর পরবর্তি অংশে থাকবে কিভাবে একটিভ করবেন।

ডাউনলোড মেডিসিন ফাইল | সাইজ ২৮৭ কেবি

ইনস্টলেশন এবং একটিভেশন

সফটওয়্যারটির একটিভেশন প্রসেস খুব সহজ বিধায় প্রত্যেকটি ধাপের স্ক্রিনশট দিয়ে টিউনটির কলেবর বৃদ্ধি করলাম না। আশা করি এটা আপনাদের বুঝতে কোন সমস্যা করবে না। সফটওয়্যারটি ইনস্টল এবং ফুল ভার্সন করার জন্য প্রত্যেকটি ধাপ মনযোগ দিয়ে দেখুন এবং তারপর অনুশীলন করুন। আশা করি ব্যর্থ হবেন না।

  • আগের যদি কোন ভার্সন আপনার পিসিতে থেকে থাকে তাহলে সেটা রেজিস্ট্রি ফাইল সহ ডিলেট করে দিন। যদি একটা ফাইলও থাকে তাহলে আমার দেওয়া মেডিসিন ফাইলটি মিসবিহ্যাব করতে পারে।
  • ইন্টারনেট কানেকশন বন্ধ করুন এবং Disable_Activation.cmd ফাইলটি রান করুন। এটা সফটওয়্যারটির ইন্টারনেট এক্সেস বন্ধ করে দিবে। কাজটি আপনি চাইলে ম্যানুয়্যালি করতে পারবেন। এর জন্য আপনার পিসির C:\Windows\System32\drivers\etc\hosts লোকেশনে থাকা হোস্ট ফাইলটিতে নিচের লাইন দুটি যোগ করে দিতে হবে।

    127.0.0.1 cap.cyberlink.com
    127.0.0.1 activation.cyberlink.com

  • এখন ডাউনলোড করা সফটওয়্যারের ইনস্টলারটি রান করুন এবং স্বাভাবিক নিয়মে সেটাপ কমপ্লিট করুন। কিন্তু মনের ভুলেও সফটওয়্যারটি রান করবেন না, করলে সাড়ে সর্বনাশ হয়ে যাবে।
  • এখন আপডেট ফাইলটি যদি ডাউনলোড করে থাকেন তাহলে সেটা সেটাপ দিন।
  • কখনোই Participate in product improvement programs অপশনে মার্ক করবেন না। কারন এটা আপনার পিসির সফটওয়্যারটির সাথে কানেক্ট করতে পারবে এবং আপনার একটিভেশন বাতিল হয়ে যেতে পারে। এক্ষেত্রে (Uncheck “Remind Me Later”, Click “Skip Registration” Button, Click “No thank you” button) ইত্যাদি অপশন ফলো করতে পারেন।
  • এখন আমার দেওয়া Medicine.exe ফাইলটি Run As Administrator দিয়ে রান করুন এবং প্যাচ অপশনটি চাপুন। আপনার কাজ এখন প্রায় শেষ।
  • আপনি এখন সফটওয়্যারটি ওপেন করুন যেকোন একটি ভিডিও ফাইলের সাহায্যে। তাহলে সফটওয়্যারটি আপনার কাছে অফলাইন একটিভেশন কোড চাইবে। আপনি প্রতি উত্তরে 12345-12345 কোড বা অন্য যেকোন কোড দিয়ে দিন। তাহলেই আপনার সফটওয়্যারটি ফুল ভার্সন হয়ে যাবে।

জানিনা এই কাজ করতে গিয়ে আমার কতোটা পাপ হচ্ছে। কারন এটা প্রায় চুরির শামিল। তবে সফটওয়্যারটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনাদের যাদের কেনার সামর্থ্য আছে তারা দয়া করে কিনে ব্যবহার করুন।

শেষ কথা

টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে টিউমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারন আপনাদের যেকোন মতামত আমাকে সংশোধিত হতে এবং আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। আর আপনাদের যাদের টেকটিউনসে একাউন্ট নেই তারা আমার ব্যক্তিগত ফেসবুক পেজ লিংক থেকে আমার টিউনে কমেন্ট করতে পারবেন। পেজে লাইক দিয়ে আমার সকল টিউন বিষয়ে আপডেট থাকুন। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো সেটা হলো, আসুন আমরা কপি পেস্ট করা বর্জন করি এবং অপরকেও কপি পেস্ট টিউন করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। দেখা হবে আগামী টিউনে।

আপনাদের সাহায্যার্থে আমি আছি........

ফেসবুক | টুইটার | গুগল-প্লাস

Previous
Next Post »

পোস্ট সম্পর্কিত সমস্যার জন্য মন্তব্য দিন।ডাউনলোড লিঙ্ক এ সমস্যা জন্য ইনবক্স করুন Aimzworld007
ConversionConversion EmoticonEmoticon

Thanks for your comment